• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

সাক্ষাৎকারে রাজশাহীর নব-নির্বাচিত মেয়র আগামী সংসদ নির্বাচন নিয়ে আ. লীগ অনেক সতর্ক

আহমেদ জাফর৪:৪৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৮

যেকোনো দল জোট করতেই পারে। তাদেরকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখার কিছুই নেই। তবে আওয়ামী লীগ বিএনপি বিহীন ও প্রতিদ্বন্দ্বিহীন নির্বাচন চায় না। বিএনপি নির্বাচন আসবে আশাবাদী আওয়ামী লীগ। শেখ হাসিনা নেতৃত্বে উন্নয়ন, আগামী নির্বাচন এবং তৃণমূলের রাজনৈতিক অবস্থা নিয়ে সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে তার দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনের অভিজ্ঞতা ও সমসাময়িক বিষয়ে দেশের জনপ্রিয় অনলাইন গণমাধ্যম আমাদেরসময় ডটককমের প্রতিবেদক আহমেদ জাফরের সঙ্গে কথা বলেছেন, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের নব-নির্বাচিত মেয়র এবং রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন।

প্রশ্ন: দলীয় কোনো নিদের্শনা আছে কি না?

খায়রুজ্জামান লিটন: রাজশাহী জেলা ও মহানগরের শীর্ষ নেতাদের সাথে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিটিং করেছেন এবং বলেছেন দলের সভাপতি ও মনোনয়ন বোর্ড থেকে যাকে মনোয়ন দেবেন তাকেই মেনে নিয়ে দলের পক্ষে কাজ করতে হবে। স্পষ্টভাবে আমাদের বলে দিয়েছেন কেউ দলের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি করলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। আমার মনে হয় একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ অত্যন্ত সতর্ক। তবে আমরা বিএনপি বিহীন নির্বাচন করতে চাই না। রাজনৈতিক দল হিসেবে গণতন্ত্রচর্চা করা উচিত। নির্বাচনে আসলে বোঝা যাবে জনগণ কার পক্ষে আছে এবং কোন দল কতটা জনগণের কাছে প্রিয়।

প্রশ্ন: জাতীয় জোটকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখছে কি না আওয়ামী লীগ?

খায়রুজ্জামান লিটন: কোনো দল জোট করতেই পারে। তাদেরকে চ্যালেঞ্জ মনে করার কিছু নেই। আমাদের জোট ও মহাজোট আছে। আমরাও চাই ছোট ছোট দলগুলো মিলে বড় জোটে পরিণত হোক। প্রতিদ্বন্দ্বিহীন নির্বাচন চাই না, বিএনপিকে নির্বাচন আসার জন্য আহবান জানাচ্ছি। তবে বিএনপি যার সাথে যেভাবে জোট গঠন করুক না কেন আমরা জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী। গণতন্ত্রের ও বাংলাদেশের জন্য সুন্দর গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে যা বিশ্ববাসীর কাছে আমরা তুলে ধরতে সক্ষম হব।

প্রশ্ন: রাজশাহীবাসীর কাছে বর্তমান সরকার কেন এতো জনপ্রিয়?

খায়রুজ্জামান লিটন: প্রধানমন্ত্রী শুধু রাজশাহীবাসীর কাছে জনপ্রিয় তা নয়, শেখ হাসিনা ১৬ কোটি মানুষের কাছেই প্রিয়। মানুষ উন্নয়ন চায়, পরিবর্তন চায় রাজশাহীতে এবার ব্যাপক উন্নয় হয়েছে। সাধারণ মানুষ এর সুফল পাচ্ছে। তিনি সৎ, সাহসী, সাধারণ মানুষের মনের কথা ও চাহিদা বোঝতে পারেন বলেই বঙ্গবন্ধুর কন্য আজ সবার কাছে এতো জনপ্রিয়।

প্রশ্ন: রাজশাহী নগরীতে নিবার্চনের হাওয়া লাগছে কি না?
খায়রুজ্জামান লিটন: নির্বাচনী উৎসবের আমেজ ইতিমধ্যে আমাদের মধ্যে চলে এসেছে। রাজশাহী নগরীতে নেতাকর্মী এবং সাধারণ জনগণের মধ্যেও উৎসব ও আনন্দ লক্ষ্য করা গেছে। কিছু দিন আগে রাজশাহীবাসী আমাকে স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তিকে মেয়র পদে নির্বাচিত করেছে। এ জন্য রাজশাহীবাসীকে অভিনন্দন জানান।

প্রশ্ন: রাজশাহীর তৃণমূলের রাজনৈতিক অবস্থা কেমন?

খায়রুজ্জামান লিটন: আমি মেয়র পদে নির্বাচিত হয়ে মানুষের চাহিদা বোঝার চেষ্টা করছি এবং জনগণ আওয়ামী লীগের ও উন্নয়নমুখী। বিগত নির্বাচনের তুলনায় রাজশাহীর তৃণমূলের রাজনৈতিক আবস্তা এবার অনেক ভালো। আগামী জাতীয় নিবার্চনেও বৃহত্তর রাজশাহীতে আওয়ামী লীগের অবস্থা ভালো থাকবে।

প্রশ্ন: আপনার এলাকার কোন কোন বিষয়ে পরিবর্তন আনতে চান

খায়রুজ্জামান লিটন: রাজশাহীতে কর্মসংস্থানের সংকট আছে। এ অঞ্চলকে শিল্প নগরী হিসেবে গড়ে তুলবো। যাতে এক থেকে দেড় লাখ লোকের কর্মসংস্থান হবে। রাজশাহীতে একটি আন্তর্জাতিক মানের বিমানবন্দর, মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় নির্মাণ করতে চাই। আন্তর্জাতিক রেললাইন সংযুক্ত করতে চাই রাজশাহীবাসীর জন্য। রাজশাহী হবে অধুনিক শিক্ষা ও শিল্পনগরী। এসব বিষয় নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে কথা বলেছি।

প্রশ্ন: এলাকার জন্য কোন বিষয়কে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছেন?

খায়রুজ্জামান লিটন: এলাকার উন্নয়ন এবং কর্মসংস্থানের জন্য চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করেছি। উন্নয়ন বাস্তবায়ন করার জন্য দরকার অর্থ। অর্থ ছাড়া কোনো কিছু করা সম্ভব নয়। এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর সাথে আমি কথা বলেছি। আওয়ামী লীগের ঘাঁটি উন্নয়নের মাটি সেই কথাটাই বাস্তবে রূপ দিতে পারলেই নির্বাচনকে সামনে রেখে নতুন মাত্রা যোগ হবে।

লাইভ

rss goolge-plus twitter facebook
Design & Developed By:

প্রকাশক : গোলাম মাওলা শান্ত
মোবাইলঃ ০১৭১৪৭৮৫০১৭, ০১৭১১৫৭৪৪১৫
অফিসঃ ৩৮৩/২/এ, বনশ্রী রোড, পশ্চিম রামপুরা, রামপুরা, ঢাকা-১২১৭

ই-মেইল: jugerbarta.news@gmail.com,

সম্পাদক:  এ্যাড. কাওসার হোসাইন
নির্বাহী সম্পাদক: খান মাইনউদ্দিন
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: তানজিল হাসান খান
বার্তা সম্পাদক: এইচ.এম বশির

টপ