• Youtube
  • google+
  • twitter
  • facebook

সেই বাড়িওয়ালি কারাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক৯:৩৭ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৩, ২০২০

ঝড়ের মধ্যে দুই মাসের শিশুসন্তানসহ ভাড়াটিয়াকে বাসা থেকে জোর করে বের করে দেওয়া বাড়িওয়ালি নূর আক্তার শম্পার পাঁচ দিনের রিমান্ড নাকচ করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। বুধবার (২২ এপ্রিল) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আবু সাঈদ এই আদেশ দেন।

আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা (জিআরও) শরিফ সাফায়েত হোসেন বলেন, বুধবার ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কলাবাগান থানার উপপরিদর্শক মো. সাইদুর রহমান আসামি শম্পাকে হাজির করে পাঁচ দিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন। অপরদিকে তার আইনজীবী রিমান্ডের আবেদন বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক জামিন ও রিমান্ডের আবেদন নাকচ করে কারাগারে আটক রাখার নির্দেশ দেন।

মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে ধানমন্ডি থেকে গ্রেপ্তার করা হয় বাড়ির মালিক শম্পাকে। ছোট দুই সন্তান ও কোলের দুই মাসের এক বাচ্চাসহ কাঁঠালবাগানের একটি বাসায় ছয় মাস আগে ভাড়াটিয়া হিসেবে উঠেছিলেন সেলিম হোসেন দম্পতি। সেলিম একটি দোকানে কাজ করতেন। করোনাভাইরাসের কারণে তিনি এখন বেকার থাকায় এক মাসের ভাড়া দিতে পারেননি।

ওই দম্পতি জানান, তারা প্রতি মাসে ভাড়া পরিশোধ করে আসছেন। বর্তমান পরিস্থিতিতে এক মাসের ভাড়া বকেয়া পড়েছে। বাড়ির মালিকের কাছে অনেক অনুরোধ করলেও তারা কোনো কথা শোনেননি। বরং রাতেই বাড়ির মালিক শম্পা থানায় গিয়ে মিথ্যা অভিযোগ করেন যে আমরা নাকি তাকে মারধর করেছি। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে জানতে পারে বিষয়টি মিথ্যা।

গত রোববার একমাসের ভাড়া বকেয়া থাকায় মধ্যরাতে ঝড়-বৃষ্টির সময় রাজধানীর ধানমন্ডির কাঁঠালবাগান এলাকায় এক ভাড়াটিয়াকে বের করে দেওয়া হয়। ঝড়ের রাতে জোর করে তিন শিশুসহ তাদের বের করে দিলে বাড্ডায় এক স্বজনের বাসায় ঠাঁই হয় পরিবারটির।

পরে র‌্যাব-পুলিশের সদস্যরা মানবিক বিবেচনায় ভাড়াটিয়াকে বাড়িতে রাখার অনুরোধ জানালেও শম্পা তাতে অস্বীকৃতি জানান। র‍্যাব-পুলিশকে দেখে নেয়ার হুমকি দিয়ে বাড়ি ছেড়ে চলে যান তিনি। এ ঘটনায় শম্পার বিরুদ্ধে রাজধানীর কলাবাগান থানায় ভাড়াটিয়াকে মারধর ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগে মামলা করেন ভুক্তভোগী সেলিম হোসেন।

র‌্যাব জানায়, সোমবার ওই পরিবারকে বাড়িতে তুলে দেন র‌্যাব সদস্যরা। কিন্তু তারপরও ওই দম্পত্তিকে বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে আসছিল বাড়ির মালিক। শেষ পর্যন্ত বাড়ির মালিক শম্পাকে গ্রেপ্তার করো হয়।

লাইভ

rss goolge-plus twitter facebook
Design & Developed By:

প্রকাশক : গোলাম মাওলা শান্ত
মোবাইলঃ ০১৭১৪৭৮৫০১৭, ০১৭১১৫৭৪৪১৫
অফিসঃ ৩৮৩/২/এ, বনশ্রী রোড, পশ্চিম রামপুরা, রামপুরা, ঢাকা-১২১৭

ই-মেইল: jugerbarta.news@gmail.com,

সম্পাদক:  এ্যাড. কাওসার হোসাইন
নির্বাহী সম্পাদক: খান মাইনউদ্দিন
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: তানজিল হাসান খান
বার্তা সম্পাদক: এইচ.এম বশির

টপ